rape ধর্র্ষণ শ্যালিকা

হাজীগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ৪ বছর শারীরিক সম্পর্ক, অবশেষে সালিশ বৈঠকে বিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চার বছর প্রেম করার পর বিয়েতে অস্বীকৃতি ,অতপর সালিম বৈঠকের মাধ্যমে বিয়ে হয় ।

১৩ জুন (রবিবার)রাতে চাঁদপুর জেলার হাজীগঞ্জ থানার ৮ নং পূর্ব হাটিলা ইউনিয়নের হারিয়াইন গ্রামে এ ঘটনা ঘটে । ঐ গ্রামের মানিক মিয়ার ছেলে নোমানের (২৪) সাথে মো:মোস্তফার মেয়ে মোসা: নাসরিন আক্তারের(১৯) সাথে বিয়ে হয়।

স্থানীয়রা জানায়, তাদের মাজে চার বছর ধরে সম্পর্ক চলছে এই কথা এলাকায় জানাজানি হলে এলাকার সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে গতকাল রাতে তাদের বিয়ে হয় ।

নোমানের স্ত্রী নাসরিন আক্তার বলেন নোমান বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিগত চার বছর আমার সাথে শারীরিক সম্পর্ক করিয়া আসিতেছে ।বিয়ের কথা বল্লে গত ১২ জুন আমাকে শারিরীক রিযাতন করে তাড়িয়ে দেয় । তারপর আমি হাজিীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স তেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে থানার গিয়ে নোমানের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করি ।এ কথা এলাকায় জানাজানি হলে এলাকার সালিশ বৈঠকের মাধ্যমে গতরাত আমাদের বিয়ের কাজ সম্পূর্ন হয় ।

সালিশীদের একজন বলেন- থানায় অভিযোগ হওয়ার পরই আমরা বিষটি জানতে পারি এবং পুলিশ তদন্তে আসার আগেই আমরা সালিম বৈঠকের মাধ্যমে তাদের বিয়ে দিয়ে দেই ।এখন থানায় আপোষনামার মাধ্যমে অভিযোগ উঠানো হবে ।

এ ব্যাপারে হাজীগঞ্জ থানার ওসি তদন্ত ইব্রাহিম খলিল বলেন – তাদের বিয়ের বিষয়ে এই মাত্র শুনেছি , তাদের নিজেদের ভীতর সমজতা হলে আমাদের কোন আপত্তি নাই ।এবং তারা থানায় আপোষনামা জমা দিলেই অভিযোগ নিষ্পত্তি হয়ে যাবে ।

শেয়ার করুন