চুরির অপরাধে

কচুয়ায় চুরির অপবাদে কিশোরী নির্যাতন! ফেইসবুকে ভাইরালের পর গ্রেফতার ৩

কচুয়া প্রতিনিধি : কচুয়ায় মোবাইল চুরির অপবাদে সুমি (২২) নামে এক নারীকে নির্যাতন করার অভিযোগ উঠেছে।

নির্যাতনের ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় ক্ষোভ ও উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। নির্যাতনের শিকার সুমি উপজেলা ৩নং বিতারা ইউনিয়নের বুধুন্ডা গ্রামের আমানিয়া প্রধানীয়া বাড়ি ইলিয়াসের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,বুধুন্ডা গ্রামের আমানিয়া প্রধানীয়া বাড়ির শফিকুল ইসলামের মোবাইল চুরি হলে একই বাড়ির ইলিয়াস মিয়ার মেয়ে সুমির বিরুদ্ধে মোবাইল চুরি করেছে বলে অপবাদ ছড়ায়। অপবাদ ছড়ানোর এক পর্যায়ে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পরে শরিফুল ইসলাম ও তার মদদপুষ্ট কয়েক ব্যাক্তি মিলে সুমিকে তার ঘর থেকে তুলে নিয়ে অমানবিক শারীরিক নির্যাতন চালায়।

এ নির্যাতনের ভিডিও চিত্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হয়ে গেলে এলাকার লোকজনের মধ্যে প্রচন্ড ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এ বিষয়ে সুমির মা পারভীন বেগম বাদী হয়ে বুধবার কচুয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং -২১। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে মামলার এজহার নামীয় তিন আসামীকে গ্রেফতার করে।

গেফতারকৃতরা হচ্ছে- বুধুন্ডা গ্রামের সিফাত উল্লাহর ছেলে মো. মেহেদী (২০), শফিকের ছেলে শাহজালাল (২৬) ও আবুল কাসেমের ছেলে শফিক (২৬)।

কচুয়া থানার ওসি মো. মহিউদ্দিন জানান, গ্রেফতারকৃত তিন আসামীকে কোর্টে সোপর্দ করার মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

22 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন