দেশে আসা প্রবাসীদের জন্য সুখবর

প্রবাস রিপোর্ট : কাজ হারিয়ে দেশে ফিরে আসা প্রবাসীদের সহায়তা করতে তাদের জন্য ৪২৭ কোটি টাকার একটি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় করোনা মহামারির কারণে কাজ হারিয়ে দেশে ফিরে আসা ২ লাখ কর্মীকে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে।

নগদ দেওয়া হবে ১৩ হাজার ৫০০ টাকা। বিভিন্ন কাজে দক্ষ ২৩ হাজার ৫০০ কর্মীকে স্বীকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে সনদের ব্যবস্থা কর দেয়া হবে। দেশেও চাকরি পেতে সহায়তা করা হবে। প্রবাসী কল্যাণ বোর্ডের সেবাগুলো জেলা উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে তুলে ধরা হবে।

বুধবার (২৮ জুলাই) সকালে একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রবাসীরা এতদিন আমাদের দিয়েছে, এখন তাদের দিতে হবে।

মানুষের আয় বাড়িয়ে ধনী দরিদ্র বৈষম্য কমাতে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, এ লক্ষ্যে স্বল্প, মধ্য এবং দীর্ঘমেয়াদীসহ বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সরকার।

বৈঠকে মানুষ এবং যানবাহন যেন চলাচল করতে পারে আর সময় যেন বাঁচে, এ বিষয়টি মাথায় রেখে ইউলুপ, ওভারপাস, আন্ডারপাস নির্মাণের নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এছাড়া দেশে সুষ্ঠু বালু ব্যবসার জন্য একে শৃঙ্খলার মধ্যে আনার নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেইসঙ্গে যত্রতত্র বালু ব্যবসা যেন গড়ে না ওঠে সেদিকে নজর রাখতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও দপ্তরগুলোকে নির্দেশ দেন তিনি। বালু ব্যবসাকে একটি কাঠামোর মধ্যে আনার নির্দেশ দেন তিনি।

সড়ক ও জনপদ বিভাগকে ইউলুপ, ওভারপাস, আন্ডারপাস নির্মাণের ক্ষেত্রে আরও সতর্ক হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মানুষ এবং যানবাহনের চলাচল নির্বিঘ্ন হওয়ার পাশাপাশি যেন সময় বাঁচে, সে বিষয়টি মাথায় রেখে নতুন করে রাস্তা নির্মাণ করার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

আজকের সভায় ৫৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ঢাকা চট্টগ্রাম জাতীয় মহাসড়কে ৩টি আন্ডারপাস ও পদুয়ার বাজারে ইন্টারসেকশন ইউলুপ নির্মাণ প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদন দেওয়া হয়েছে ৫৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে জেলা মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততার উন্নয়নে সংশোধিত প্রকল্প। অস্ট্রেলিয়ার ক্যানবেরিতে ১৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে বাংলাদেশ হাইকমিশন বা চ্যান্সেরি ভবন নির্মাণ করা হবে।

অনুমোদন দেওয়া হয়েছে, ৯৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ঠাকুরগাঁওয়ে বিসিক খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প-নগরী প্রস্তুত প্রকল্প। অনুমোদন পেয়েছে ১৭৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ইনস্টিটিউট অব টিস্যু ব্যাংকিং অ্যান্ড বায়োমেটেরিয়াল রিসার্চের সেবা ও গবেষণা সুবিধার আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ প্রকল্প।

অন্যান্য প্রকল্পের মধ্যে আছে ১১৮ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬৪ জেলায় মহিলা কম্পিউটার প্রশিক্ষণের সংশোধনী প্রকল্প, ৭২ কোটি টাকা ব্যয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্ণাঙ্গ শিশু কার্ডিওলজি ও শিশু কার্ডিয়াক সার্জারি ইউনিট স্থাপন প্রকল্প, ২ হাজার ৩৩৪ কোটি টাকা ব্যয়ে দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আয়রন ব্রিজ পুনর্নির্মাণের সংশোধিত প্রকল্প, ৪৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মা বহুমুখী সেতুর ভাটিতে মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং ও টঙ্গীবাড়ি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পদ্মা নদীর বাম তীর সংরক্ষণ প্রকল্প।

28 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন