chandpur report কুমিল্লায় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দগ্ধ

কুমিল্লায় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দগ্ধ ১৫ তরুণ: একজনের মরদেহ উদ্ধার

জাহাঙ্গীর আলম ইমরুল, কুমিল্লা: ২৪ আগস্ট ২০২১
কুমিল্লার তিতাস উপজেলায় গোমতী নদীতে লঞ্চের ছাদে ডিজে পার্টি করার সময় বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে দগ্ধ হয়েছে অন্ততঃ ১৫ জন তরুণ। এ সময় তিনজন তরুণ নদীতে পড়ে নিখোজ হয়। তাদের মধ্যে রাতেই দু’জনকে উদ্ধার করা গেলেও নিখোঁজ একজনের লাশ মিলে মঙ্গলবার।

২৩ আগস্ট সোমবার রাত ১০টার দিকে তিতাস উপজেলার দড়িকান্দি সেতুর পূর্ব পাশে মেসার্স বাদল সরকার অ্যান্ড সন্স নামের একটি লঞ্চে এ দুর্ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহতদের নদীতে মাছ ধরা জেলে ও স্থানীয়রা উদ্ধার করে। প্রথমে তিতাস ও দাউদকান্দিও গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কয়েকজনকে ঢাকা মেডিকেল ও রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ণ অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ৩০/৪০ জনের একদল তরুণ লঞ্চের ছাদে ডিজে পার্টি করছিল। লঞ্চটির নদীর উপর থাকা বিদ্যুতের তারের নিচ দিয়ে যাওয়ার সময় ছাদে থাকা তরুণরা তারে জড়িয়ে দগ্ধ হয়। এসময় তিনজন পানিতে পড়ে যায়। পরে দুইজনকে উদ্ধার করেন স্থানীয় জেলেরা। তাৎক্ষণিক ভাবে একজনের সন্ধান পাওয়া যায়নি। পানিতে পড়ে নিখোঁজ হওয়া ওই কিশোরের মরদেহ উদ্ধার করা হয় মঙ্গলবার।

মঙ্গলবার দুপুরে শামীম হোসেন (১৪) নামের ওই কিশোরের মরদেহ তিতাস নদীর শিবপুর খালের মুখ এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। শামীম তিতাস উপজেলার শিবপুর গ্রামের সিএনজি অটোরিকশা চালক আব্দুল মতিনের ছেলে। সে স্থানীয় একটি স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ছিলো।

তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুধীন চন্দ্র দাস জানান, দুপুরে শিবপুর খালের মুখে মরদেহটি ভেসে উঠলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে।

ওসি জানান, বেশ কিছুদিন যাবৎ উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশ নদীতে ডিজে পার্টি না করতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল। পুলিশ বেশ কয়েকটি স্থানে অভিযানও পরিচালনা করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রশাসনের কঠোর নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এধরনের ডিজে পার্টি করা অত্যন্ত দুঃখজনক বলেও মন্তব্য করেন ওসি।

73 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন