health healty life

মাত্র ৩ উপকরণে ঘরেই তৈরি করুন মিষ্টি দই

লাইফস্টাইল ডেস্ক :

দই খেতে কে না পছন্দ করেন! ভালো-মন্দ খাওয়ার পর দই খাওয়ার রেওয়াজ দেশের সব স্থানেই আছে। তবে গরমে দই খাওয়ার উপকারিতা অনেক। বিশেষ করে গরমে দই খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে।

ইফতারে অনেকেই ঠান্ডা দই খেয়ে থাকে। তবে সবসময় দই কিনে না খেয়ে বরং তৈরি করে নিতে পারেন ঘরেই। এতে দই আরও স্বাস্থ্যকর হবে। সেইসঙ্গে প্রয়োজনমতো আপনি মিষ্টির পরিমাণ বাড়িয়ে কমিয়েও নিতে পারবেন।

মাত্র ৩ উপকরণ দিয়েই ঘরে তৈরি করা যায় দই। একদম দোকানের মতোই হবে এর স্বাদ। তাহলে আর দেরি কেন, ঝটপট তৈরি করে নিন মিষ্টি দই। রইলো রেসিপি-

উপকরণ

১. তরল ‏দুধ ১ লিটার
২. ‏গুঁড়ো দুধ আধা কাপ
৩. ‏চিনি ১ কাপ
৪. ‏টক দই ১/৩ কাপ

পদ্ধতি

প্রথমে ১ লিটার দুধ জ্বাল করে কিছুটা কমিয়ে নিন। এর সঙ্গে গুড়া দুধ ও ৩/৪ কাপ চিনি মিশিয়ে নিন। চুলা থেকে নামিয়ে একটু ঠান্ডা করে নিতে হবে। তবে পুরাপুরি ঠান্ডা করা যাবে না।

এবার অন্য একটি পাত্রে বাকি চিনি ও সামান্য একটু পানি দিয়ে ক্যারামেল তৈরি করে নিন। দুধের সঙ্গে মিশিয়ে দিন ক্যারামেল। এরপর টকদই একটি কাটা চামচ দিয়ে খুব ভালো করে ফেটিয়ে দুধের মিশ্রণে মিশিয়ে নিন।

দই বসানোর পাত্র পরিষ্কার করে রাখুন। খেয়াল রাখবেন তাতে যেন একটুও পানি না থাকে। এবার কিছুটা উপর থেকে দুধ-এর মিশ্রণটা ঢেলে দিন।

ঢাকনা দিয়ে ঢেকে একটি তোয়ালে দিয়ে জড়িয়ে কমপক্ষে ৮ ঘণ্টা বা সারা রাত মিশ্রণটি রেখে দিন। নির্দিষ্ট সময় পর দেখবেন আপনার মিষ্টি দই তৈরি হয়ে গেছে।

৮ ঘণ্টা পরেও যদি ভালোভাবে না জমে; তাহলে আরও ৫-৬ ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। এরপর ফ্রিজে রেখে ইফতারের আগে পরিবেশন করুন ঠান্ডা ঠান্ডা মিষ্টি দই।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

ibn sina health care 1

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : 01742057854 (সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : 01762240650

শ্বেতীরোগ,  একজিমা, যৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

45 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন