বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা

চাঁদপুরে বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রীকে হত্যা : স্বামীসহ সপরিবার পলাতক

নিজস্ব প্রতিনিধি :

চাঁদপুর সদর উপজেলার ১ নং বিষ্ণুপুর ইউনিয়নে লালপুরে ঘাতক স্বামী বালিশ চাপা দিয়ে স্ত্রী আমেনা আক্তার (১৭)কে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মাত্র দুই মাস পূর্বে বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড মধ্যম চর গ্রামের এনালহক প্রধানিয়া মেয়ে আমেনা আক্তারের সাথে লালপুর গ্রামের মান্নান গাজীর ছেলে শামীম গাজী্র (২৩) মাত্র দুই মাস পূর্বে বিয়ে হয়। বিয়ের দুই মাসের মধ্যে স্ত্রীকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে ঘাতক শামীমসহ সপরিবারে পালিয়ে গেছে।

সোমবার স্বামীর বাড়িতে নির্মমভাবে নববধূর প্রাণ হারাতে হয়েছে। স্থানীয়রা ঘাতক সামিমকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে। কিন্তু স্থানীয় কিছু দালাল চক্র ঘটনাটি আত্মহত্যা হয়েছে বলে ভুল তথ্য প্রদান করে অবশেষে পুলিশের কাছ থেকে ঘাতক স্বামী শামীমকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়।

এদিকে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পুলিশ লাশ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করলে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করেন। ময়নাতদন্ত করা হাসপাতালের আরএমও হাসিবুল হাসান জানায়, নববধূ আমেনা আক্তারকে বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করা হয়েছে আত্মহত্যার কোন সিমটম পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ ঘটনাটি আত্মহত্যা করে উল্লেখ করেছেন। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে সবকিছু স্পষ্ট হয়ে যাবে।

এদিকে চাঁদপুর মডেল থানার এসআই শাহরিয়ার জানান, আমেনা আক্তার মৃত্যুর ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। যদি নিহতের পরিবার হত্যা মামলা দায়ের করে তাহলে আমরা আসামিকে গ্রেপ্তার করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব। এদিকে নিহতের বড় ভাই অভিযোগ করে বলেন, ঘটনার আগের দিন রাতে তার স্বামীর সাথে মোবাইলে ঝগড়া হয়েছে। সে সময় তার স্বামী শামীম গাজী তাকে বালি চাপা দিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোপর্দ করেছে। কিন্তু পুলিশ আমাদেরকে না জানিয়ে তাকে ছেড়ে দিয়েছে। আমরা ঘাতক স্বামী দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : যৌন রোগের কারণ ও প্রতিকার

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকার ও প্রতিরোধে শক্তিশালী ঔষধ

আরো পড়ুন : মেহ প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের কার্যকরী সমাধানসমূহ

আরো পড়ুন : গেজ, অশ্ব,পাইলসের সহজ চিকিৎসা

140 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন