হায়দার আহমেদ হিরান

মাতৃভূমি : হায়দার আহমেদ হিরান

হায়রে মাতৃভূমি
যতই চাই থাকতে ভূলে
ততই জাগাও নানান স্মৃতি
হৃদয় মাঝে তুমি।

থাকতে যত চাই দূর দেশে
পড়াশোনা কর্ম তাগিদের টানে,
নানান স্মৃতি হৃদয় জুড়ে
বারবার পিছু ফিরে আনে।

সোনালী ফসল দক্ষিনা হাওয়া
আরও মেঘনা নদীর ঢেউ,
মুখের কথা আর হৃদয়ের টানে
কখনো মিল পাবে না কেউ।

নানান স্মৃতি পথ পাখালি
আর পশু পাখির গানে,
মাতৃভূমির অপরুপতায়
আমায় পিছু টানে।

বাবার স্নেহ মায়ের আদর
আর নিজ গ্রামের মায়া,
ইট পাথরের এই শহরে
আমায় দিচ্ছে ছাঁয়া।

মাঠ ঘাট আর খেলার সাথী
কৃষ্ণচুঁড়া হরিণ দোলার বন,
ইট পাথরের এই কঠোরাতায়ও
কল্পনাতে মাতিয়ে রাখে মন।

চিংড়ি পোঁয়া মাগুর কই ছুরিয়া
আরও রুপালি ইলিশের জোলে,
যে খেয়েছে একবার ছোট্ট লাইপে
মাতৃভূমির কোলে
সে কি কখনো ভুলে।

মক্তব মসজিদ মাধ্যমিক আর
সেই প্রাইমারির শান,
আজও আমায় খাচ্ছে খুরে
অতীতের পিছু টান।

হুজুর মাওলানা মাষ্টার মশাই
যাদের থেকে আমার
শিক্ষা জীবন শুরু,
আপনাদের জানাই হাজার সালাম
ওগো আমার শিক্ষা গুরু।

হাট বাজারে অলি গলি
আর সেই চায়ের দোকানের কথা,
মনে পরলে শিহরিয়ে উঠি আজও
লাগে হৃদয় জুড়ে ব্যাথা।

পড়াশোনা ও কর্ম তগিদে আছে
দেশ বিদেশে যারা,,
প্রতি ঈদের মিলন মেলায়
অচেতন একে অন্যকে ছাড়া
দূরে থেকেও একই শূতায়
বাঁধা আছে তারা।

ইট পাথরের এই শহরের হাওয়া
মিল খাচ্ছে নারে মনে,
কখন ফিরব আপন গায়ে
শুধু সেই সময়ই গনে
গায়ের প্রতি জনে
প্রতি ক্ষণে ক্ষণে
নিজের আপন মনে।

মাতৃভূমির স্মৃতি কথা লিখে
কখনো করা যাবে না শেষ,
সকল মায়ার সেরা মায়ায়
মাতৃভূমিই বেশ।

 33 সর্বমোট পড়েছেন,  3 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন