নেওয়াজ স্যার

আলী নেওয়াজ স্যারের স্মৃতি

মিজানুর রহমান রানা :

মরহুম আলী নেওয়াজ স্যার। রামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের একজন সম্পদ ছিলেন। তাঁর হাতে গড়া হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রী আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে উচ্চ পদমর্যায় আসীন। কিন্তু আলী নেওয়াজ স্যারের স্মৃতি আদর্শ আজ ক’জন মনে রেখেছেন?

আজ আমি এই মহান শিক্ষককে নিয়ে স্মৃতি চারণ করবো।

আমি এসএসসি প্রি-টেস্ট পরীক্ষায় কয়েক বিষয়ে খারাপ রেজাল্ট করেছিলাম। একদিন ক্লাসে আলী নেওয়াজ স্যার আমাকে দাঁড় করালেন? বললেন, এই বাঁদর (আমি মানুষ হলেও স্যার এই নামের ছাত্রদের ডাকতেন) দাঁড়া।

আমি দাঁড়ালাম। তিনি বললেন, কয় বিষয়ে ফেল করেছিস?

আমি বললাম, স্যার চার বিষয়ে।

তিনি আমাকে নির্দেশ দিলেন, আগামীকাল তুই স্কুলের হোস্টেলে চলে আসবি।

আমি বললাম, স্যার আমার তো সিঙ্গেল খাট নেই।

তিনি বললেন, তুই শাহনেওয়াজের সাথে একসাথে থাকবি।

শাহনেওয়াজ আমার ক্লাসমেট ছিলো। তার সাথে আমার বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিলো। তাই স্যার আমাকে তার সাথেই থাকতে বললেন।

আমি পরদিনই চলে আসলাম।

স্যারের এই অবদান আমি কখনই ভুলবো না। স্যারের নির্দেশে হোস্টেলে এসে আমার পড়াশুনা বেশ ভালো হয়েছিল। আমি ১৯৯০ সালে ভালোভাবেই এসএসসিতে উত্তীর্ণ হয়েছিলাম।

স্যার বিনা পয়সায় বিকেলে আমাদেরকে প্রাইভেট পড়াতেন। কারও কাছ থেকে টাকা পয়সা নিতেন না। তিনি ছাত্রদের জন্যে খুব কঠোর ছিলেন। একবার পিটাতে শুরু করলে থামতে অনেক সময় নিত। স্যারকে আমার বাঘের মতো ভয় পেতাম।

অন্যায়কে প্রশ্রয় দিতেন না। একজন আদর্শবান শিক্ষক ছিলেন। আমরণ রামপুর স্কুলের খেদমতে নিজকে বিলিয়ে দিয়েছিলেন।

স্যার যতোই কঠোর ছিলেন, তেমনি অমায়িক ভদ্রলোক ছিলেন। সর্বদা হাসিমুখে কথা বলতেন। আমরা এসএসসি পাস করার পর তিনি একদিন আমাদেরকে ডেকে খুব সুন্দরভাবে কথা বলেছিলেন।

স্যার যেদিন দুনিয়া থেকে চলে গিয়েছিলেন, তার ছাত্রদের মনে হয়েছিল স্কুলের আর অভিভাবক নেই। রামপুর স্কুল অভিভাবক শূন্য হয়ে গিয়েছিল।

তবে শেষ কথা, রামপুর স্কুলে স্যারের মতো আর ক’জন আদর্শ শিক্ষক ছিলেন। যাদের আমরা শিক্ষক হিসেবে পেয়েছিলাম। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য, জনাব স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা জুনাব আলী স্যার। প্রধান শিক্ষক সৈয়দ আহমেদ। নওহাটার হুজুর স্যার (নামটা মনে পড়ছে না। সম্ভবত এমদাদ স্যার)। বাবুল স্যার। পুলিন স্যার। ধীরেন্দ্র স্যার। হাবিব স্যার প্রমুখ।

এছাড়া প্রাইমারীতে যে শিক্ষকগণ আমাদের আদর্শ ছিলেন তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য আলী আকবর স্যার, মফিজ স্যার, মজুমদার বাড়ির  আবদুল মান্নান স্যার প্রমুখ।

এঁরা আদর্শবান শিক্ষক ছিলেন। যারা আমাদের ছেড়ে গত হয়েছেন, আমি সব ছাত্রদের পক্ষ থেকে তাঁদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। যাঁরা বেঁচে আছেন, আল্লাহতায়ালা তাঁদেরকে সহিসালামতে রাখুন।

(লেখাটি ধীরে ধীরে আপডেট করা হবে)। এ মুহূর্তে অনেকের কথাই মনে পড়ছে না। 

 প্রিয় পাঠক, আপনার স্কুলের কোনো শিক্ষকের স্মৃতিময় রচনা যদি প্রকাশ করতে চান, তাহলে  আমাদের মেইলে পাঠান। আমরা প্রকাশ করবো।

mail address : [email protected]

157 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন