চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদকের ওপর হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক, সাবেক ছাত্রনেতা ও একজন কর্মীবান্ধব নেতা। এই সময়ের সাহসী সৈনিক ফেরদৌস মোর্শেদ জুয়েল-এর উপর জামাত-শিবির-এর অতর্কিত ও ন্যাক্কারজনক হামলা হয়েছে।

জানা যায়, আজ ১৫ অক্টোবর ২০২১ খ্রি. চাঁদপুর বায়তুল আমান জামে মসজিদে জুমআর নামাজ পড়ার পর বের হওয়ার সময় হঠাৎ করে মাদ্রাসার ক’জন ছাত্র তাঁকে অতর্কিত আক্রমণ করে লাঠি দিয়ে চোখে আঘাত করে। এ সময় নেতাকর্মীরা এগিয়ে এলে আক্রমণকারীরা পালিয়ে যায়।

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদকের ওপর এ মধ্যযুগীয় হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকর্মী, জেলা আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ সহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

তারা  বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদকের ওপর অতর্কিত হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি। চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ অন্যথায় এদের প্রতিহত করবে!

এ ব্যাপারে একটি সূত্র জানায়, কেন্দ্র থেকে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগকে দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় পূজামন্ডপ রক্ষার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। যাতে কোন ধর্মের লোক পূজামন্ডপকে ঘিরে কোনোপ্রকার নাশকতা চালিয়ে দেশকে অস্থিতিশীল করতে না পারে। সেই লক্ষ্যে তিনি কাজ করে যাচ্ছিলেন। সম্ভবত ওই কারণেই তার ওপর প্রতিক্রিয়াশীল একটি উগ্র গোষ্ঠী অসন্তুষ্ট ছিলো।

সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক ফেরদৌস মোর্শেদ জুয়েল নিবেদিতপ্রাণ হিসেবে সংগঠনের জন্যে কাজ করে যাচ্ছিলেন। সে কারণে তার ওপরই হামলা করা হয়েছে বলে জানায়।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

664 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন