chandpurreport 108

ফরিদগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে আগুন, ৭২ ঘন্টার মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট জমার নির্দেশ

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি : :
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে গুপ্টি কর্মকার বাড়িতে বিরেশ্বরের পরিত্যাক্ত বসত ঘরে আগুন দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা। ঘটনাটি ঘটে ১৯ অক্টোবর (মঙ্গলবার) রাত উপজেলার গুপ্টি গ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শী উত্তম কুমার প্রিয় সময়কে জানায়, আগুনে পুড়ে যাওয়া ঘরের লোকজন চাঁদপুর কামার শীল্পের কাজ করছে। বাড়িতে কেউ ছিল না। ঘরটি তালা বদ্ধ অবস্থায় ছিল।

স্থানীয় ৫নং গুপ্টি পূর্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল গণি বাবুল পাটওয়ারী প্রিয় সময়কে জানান, কর্মকার বাড়ির বিরেশ^রের পরিত্যাক্ত তালা বদ্ধ একটি ঘর আগুন লেগে পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

তিনি আরোও জানান, মন্দির অনেক দূরে কিভাবে আগুনের সূত্রপাত হলো বলা যাচ্ছেনা।তবে ফায়ার সার্ভিস এসে দেখার পর তদন্ত সাপেক্ষে বলা যাবে। ওই ঘরের মালিক চাঁদপুরে কর্মকারের কাজ করেন ও সেখানেই থাকেন।

এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহিদ হোসেন প্রিয় সময়কে জানান, আগুনের সূত্রপাতের বিষয়টি এখনই বলা যাচ্ছেনা। ফায়র সার্ভিস ও বিদ্যুত বিভাগ আগুনের সূত্রপাতের বিষয়টি নিশ্চিত করার পর তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিস, জেলা পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ পিপিএম বার, ইউপি চেয়ারম্যান, হিন্দু কমিউনিটির লোকজন।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজসিল প্রিয় সময়কে জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা যাচেছ। বিদ্যুতের সটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। ইউএনও, ইউপি চেয়ারম্যান, ফায়ার সার্ভিস , বিদ্যুত অফিস ও হিন্দু কমিউনিটির একজনকে নিয়ে একটি তদন্ত কমিটি করে দিয়েছি। তদন্ত কমিটি ৭২ ঘন্টার মধ্যে রিপোর্ট পেশ করার কথা। রিপোর্টের প্রেক্ষিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

145 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন