পাতা

লেটুস পাতার ঔষধি গুণাগুণ

এস্টেরাসি গোত্রের উদ্ভিদ লেটুস চাষ প্রথম মিশরীয়রা শুরু করেছিল। আঁশযুক্ত এই সবজিটি ফাস্টফুড, সালাদে কিংবা রান্নায় ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এতে নানা রকম ভিটামিন ছাড়াও রয়েছে একেবারে কম ক্যালরি।

ঠাণ্ডাজনিত অসুখ হাঁচি, কাশি, কফ, হাঁপানি ও ফুসফুসের ইনফেকশন দূর করতে সালাদে প্রতিদিন লেটুসপাতা খেতে পারেন। লেটুস পাতা হজমও হয় দ্রুত। এতে অল্প পরিমাণে কোলেস্টরেল রয়েছে যা হৃদযন্ত্রের জন্য উপকারী।

এতে রয়েছে আইরন। যা গর্ভবতী নারীদের জন্য প্রয়োজন। প্রোটিন দেহের পেশী গঠনে জোরালো ভূমিকা রাখে। সালাদে নিয়মিত লেটুস পাতা রাখলে প্রোটিন পাওয়ার সুযোগ মেলে।
ক্যালসিয়াম পেতে পারেন লেটুস পাতা থেকে। হাড় এবং দাঁতের গঠনে ক্যালসিয়ামের বিকল্প নেই। লেটুসে কয়েক ধরনের ভিটামিন ‘বি’ রয়েছে।

লেটুস পাতা থেকে যথেষ্ট পরিমাণ পটাসিয়াম পাওয়া যায়। যা রক্তের জন্যও উপকারী। লেটুস পাতা ক্যান্সারের বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। এতে বিটা ক্যারোটিন ও লুটিনের মতো অ্যান্টি অক্সিডেন্ট আছে। যা ক্যান্সারের কোষ বৃদ্ধি হ্রাস করে।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)
হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : 01762-240650

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

আরো পড়ুন : হাঁপানির চিকিৎসা

আরো পড়ুন : অর্শ বা পাইলস হলে কী করবেন ?

আরো পড়ুন : অ্যালার্জি দূর করবে ৫টি খাবার

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : যৌন রোগের কারণ ও প্রতিকার

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকার ও প্রতিরোধে শক্তিশালী ঔষধ

আরো পড়ুন : মেহ প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের কার্যকরী সমাধানসমূহ

আরো পড়ুন : গেজ, অশ্ব,পাইলসের সহজ চিকিৎসা

আরো পড়ুন : মলদ্বার দিয়ে রক্ত পড়ার হোমিও চিকিৎসা

 37 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন