chandpurreport 214

ফরিদগঞ্জের নোয়াপাড়ায় ১ কিলোমিটার সড়কের জন্যে ৫ গ্রামের দুর্ভোগ!

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি :
চাঁদপুর জেলার ফরিদগঞ্জ উপজেলার পাইকপাড়া উত্তর ইউনিয়নের ঐতিহ্যবাহী নোয়াপাড়া দাখিল মাদ্রাসা হইতে সাইসাঙ্গা পর্যন্ত ১ কি.মি. সড়কের জন্য ৫ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষের জন দুর্ভোগ চরমে।

সরেজমিনে জানা যায়, নোয়াপাড়া দাখিল মাদ্রাসা হইতে সাইসাঙ্গা পর্যন্ত ১ কি.মি. সড়কে বড় বড় গর্ত কোন কোন স্থানে হাটু পানি এবং খানা খন্দে পরিণত হয়েছে।পুকুর পাড়ের মাটি ধসে পড়ে যাতায়াতের অনুপযোগি হয়ে পড়ে।

এসড়কটি দিয়ে প্রতিদিন চলাচল করছে নোয়াপাড়া দাখিল মাদ্রাসার, নোয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

এই রাস্তায় প্রতিদিন চলাচল করছে নোয়াপাড়া, সাইসাঙ্গা, আষ্টা, সুবিদপুর ও ষোলদানা গ্রামের কয়েক শতাধিক জনসাধারণ।

শতবর্ষী আব্দুল খালেক জানান, এই সড়কটি আমরা নিজ হাতে মাটি কেটে নির্মাণ করেছি। আজও পর্যন্ত সড়কটি ঐ অবস্থায়ই রয়েছে। এই সড়কটিতে সরকারের কোন উন্নয়ন কর্মকান্ড হয়নি। এবং এই রাস্তায় চেয়ারম্যান, মেম্বাররা এসে নানান প্রতিশ্রæতি দিয়ে চলে যায়।

স্থানীয় বাসিন্দা শাহআলম, রফিকুল ইসলাম, মিজানুর রহমান বলেন, কিছুদিন আগে উপজেলা পরিষদ থেকে ইউনিয়ন পরিষদে গ্রাম উন্নয়নের জন্য নগদ অর্থ বরাদ্দ দিলেও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তার বাড়ির সামনে এবং আশেপাশে উন্নয়ন করেছে। নির্বাচন ছাড়া আর কেউ আসে না।

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

নোয়াপাড়া দাখিল মাদ্রাসার গত বৎসরের বাৎসরিক মাহফিলে স্থানীয় উপজেলার এক নেতা কয়েক সহস্রাধিক মানুষের সম্মুখে সড়কটি নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যান। কিন্তু এক বছর পেরিয়ে গেলেও এলাকার মানুষের সেই কাঙ্খিত সড়কটি কোনও উন্নয়ন হয়নি।

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

এ বিষয়ে ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান চাঁদপুর রিপোর্ট প্রতিবেদককে মোবাইল ফোনে জানান, ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে বহু বলেও এই রাস্তাতে উন্নয়নের কোনও বরাদ্ধ পাওয়া যায় নি।

এ বিষয়ে ইউপিচেয়ারম্যান আলী আক্কাছ ভূইয়া চাঁদপুর রিপোর্ট প্রতিবেদককে বলেন, এটা সাবেক এমপি শামছুল হক ভূইয়া থাকলে আমি সড়কটি নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করতে পারতাম, বর্তমান এমপির কোন বরাদ্দ আমি পাচ্ছি না।

 21 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন