vitiligo china

শ্বেতী রোগের সেরা চায়না ঔষধ

শ্বেতী রোগ হচ্ছে অটো ইমিউন ডিজিজ। শরীরের কিছু কিছু অংশ সাদা হয়ে যাওয়া এ রোগের লক্ষণ। সাধারণত সূর্য কিরণের প্রভাব, মেলানিনের অভাব, ফাঙ্গাল ইনফেকশন ইত্যাদি কারণে এ রোগ হয়ে থাকে। এটি ছোঁয়াচে নয় অথবা ভয়ঙ্করও নয়।

তবে এ রোগ হলে কিছু কিছু মানুষের মুখে, হাতে প্রদর্শিত স্থানে হওয়ার কারণে অস্বস্তিকর মনে হতে পারে।

কারো কারো স্থির থাকে, কারো কারো ধীরে ধীরে ছড়ায়, আবার কারো কারো খুব দ্রুত ছড়ায়।

সাধারণ মানুষ অনেকেই মনে করেন যে, এ রোগের চিকিৎসা নেই। কিন্তু আধুনিক প্রযুক্তির যুগে এ রোগের চিকিৎসা রয়েছে। তবে রোগীদের ধৈর্য্যর অভাবে তারা ভালো হয় না মনে করে কয়েকমাস চিকিৎসা নিয়ে পরে চিকিৎসা বন্ধ করে দেয়। তাই এ রোগ থেকে মুক্তি পায় না কেউ কেউ।

মনে রাখতে হবে, শ্বেতী রোগ অন্য দশটা রোগের মতো নয়। এ রোগ হলে কারো কারো চিকিৎসায় দ্রুত ভালো হয়, আবার কারো কারো অবস্থা ভেদে দীর্ঘদিন সময় নিতে পারে।

মনে রাখতে হবে যে, একজন ক্যান্সার রোগীর ক্ষেত্রে মানুষ নিশ্চিত জানে যে, কেমোথেরাপি দেওয়ার পরও রোগী মরে যেতে পারে, তবুও মানুষ লাখ লাখ টাকা খরচ করে চিকিৎসা চালিয়ে যায় বেঁচে থাকার আশায়। কিন্তু শ্বেতী রোগীরা ‘ভালো হয় না’ মনে করে দু’একমাস চিকিৎসা নিয়ে পরবর্তীতে তা ছেড়ে দেয়। ফলে তারা তা থেকে মুক্তি পায় না। তাই এ রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে আপনাকে দৃঢ় মনোবল রাখতে হবে।

শ্বেতী রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে সাধারণত কোনো ল্যাবরেটরি পরীক্ষা ছাড়া শুধু রোগের লক্ষণ দেখেই এই রোগ নির্ণয় করা হয়। কিন্তু বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা প্রয়োজন। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ ব্যবহার করা হয়।

night king new 01762240650

প্রয়োজনে রোগীর বয়স, রোগের সময়কাল, রোগের স্থান এবং ব্যাপ্তিভেদে চিকিৎসা পদ্ধতি বাছাই করা হয়। সেক্ষেত্রে এ রোগ হলে প্রাথমিক অবস্থায় Recap ক্রিম, Vitiligo Natural, Vitiligo Natural Harbs, Vitiligo Remover সহ চিকিৎসকের নির্দেশনামতে আরো কিছু ঔষধ কয়েক মাস এমনকি প্রয়োজনে কয়েক বছর ধরে নিয়মিতভাবে সেবন করতে হয়। এ চিকিৎসায় ধীরে ধীরে শ্বেতী থেকে আরোগ্য লাভ করা সম্ভব এবং সারাদেশে প্রায় এক হাজারেরও বেশি রোগী আরোগ্য লাভ করেছেন।

এ চিকিৎসার ক্ষেত্রে আপনি নিজে সরাসরি গিয়ে ঔষধ গ্রহণ করতে পারলে তা হবে পারফেক্ট। তবে যদি কোনো কারণে তা সম্ভব না হয় তবে বাংলাদেশের যে কোনো জেলায় কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমেও দু’ থেকে তিন দিনের মধ্যেই ঔষধ গ্রহণ করতে পারবেন। এক মাসের প্রতি কোর্স ঔষধের মূল্য ২৩৫০/- টাকা। প্রবন্ধের শেষে হাকীম মিজানুর রহমান-এর সাথে যোগাযোগের নাম্বার দেয়া আছে। তাঁর সাথে যোগাযোগ করে ঔষধ গ্রহণ করতে পারেন।

এ রোগ হলে প্রাথমিক অবস্থায় এ চিকিৎসা গ্রহণ করলে শরীরে মেলানিন উৎপন্য হতে শুরু করে এবং আক্রান্ত স্থান ক্রমে কমে শরীরের অন্যান্য স্থানের মতোই সুন্দর হয়ে উঠে এবং শ্বেতী রোগের পরিসমাপ্তি ঘটে। সেই সাথে ভবিষ্যতে আবার যাতে শ্বেতী আক্রান্ত না হতে হয় সেজন্য ডাক্তারের নির্দেশমতো চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে। ফলে পরবর্তীতে এ রোগে আক্রান্ত হবার সম্ভাবনা আর থাকে না। যাদের শ্বেতী রোগ আছে তারা এ চিকিৎসা সেবা নিতে পারেন৷ এটা একটা ভাল মানের চিকিৎসা সেবা।

piles fistula

কারো কারো শ্বেতীরোগ চিকিৎসায় ভালো হতে একটু সময় লাগে। কারো কারো এক বছর বা দেড়-দুই বছরও সময় লাগে। কারো কারো কম সময়ে ভাল হয়। তবে শ্বেতীরোগের পরিমানের উপর সময় কম বা বেশী লাগে। তাই নিরাশ না হয়ে চিকিৎসা সেবা নিলে ভাল ফল পাবেন।

প্রাথমিক পর্যায় হলে সম্প্রতি আবিষ্কৃত Recap নামের ঔষধ ব্যবহারে এর সফল চিকিৎসা আছে। সেই সাথে Vitiligo Natural ব্যবহার করতে হবে। এটি শ্বেতী রোগের মহৌষধ। এছাড়াও আরো কিছু ঔষধ রয়েছে, যা পরবর্তীতে অবস্থা ভেদে প্রদান করা হয়।

রোগের বয়স দীর্ঘ বা ক্রনিক হলে দীর্ঘদিন ওষুধ সেবন করতে হয়। এক্ষেত্রে চিকিৎসক ও রোগী দু’জনকে ধৈর্যের পরিচয় দিতে হয়। কারণ শ্বেতী একটি জটিল রোগ। এ রোগ থেকে মুক্তি পেতে ধৈয্যের পরিচয় দিতে হয়। যাদের এ রোগটি শুরুর সাথে সাথেই চিকিৎসা শুরু করা যায় অর্থাৎ ঔষধ প্রয়োগ করা যায় এবং নিম্নে বর্ণিত খাবার বিধি-নিষেধের বিষয়ে সচেতন হওয়া যায়। তাদের এ রোগ সহজেই নির্মূল হয়।

আর এ রোগটি দু’তিন বছর যারা লালন পালন করছেন। খাবার দাবার বিধি-নিষেধমতো গ্রহণ করছেন না, ঔষধ প্রয়োগ করছেন না তাদের সুস্থ হতে তিন, চার বা ছয়মাস এমনকি দু’এক বছর সময় লাগতে পারে। তবে ঔষধ প্রয়োগের বিষয়ে ধৈর্য হারাবেন না। ঔষধ ব্যবহার করতে হবে এবং খাবার-দাবারের বিষয়ে নিম্নে বর্ণিত বিধি নিষেধগুলো মেনে চলতে দ্রুত এ রোগ থেকে আরোগ্য লাভ করা যায়।

করণীয় :

কোষ্ঠকাঠিন্য দোষ থাকলে দূর করতে হবে।

দুধ, ছানা, মাখন, স্নেহজাতীয়, ফলের রস ও অন্যান্য পুষ্টিকর খাদ্য বেশি বেশি খাবেন।

পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা ভালো।

চিকিৎসা :

ছোট আকৃতির শ্বেতী মলম বা ওষুধে সেরে যেতে পারে। Recap মলম লাগানো বা Vitiligo Natural ওষুধ সেবনের পাশাপাশি ডাক্তার নির্দেশিত অন্যান্য ঔষধ প্রতিনিয়ত মালিশ করতে হবে শ্বেতী-আক্রান্ত স্থানে। বড় আকারের শ্বেতী হলে Recape মলম আর Vitiligo Natural ও Vitiligo Remover ওষুধে কাজ হতে প্রায় ৬ মাস এমনকি দেড় থেকে ২ বছরও লাগতে পারে।

লক্ষ্য করুন :

– যত অল্প বয়সে শ্বেতীর চিকিৎসা করা যায় তত ভালো।
– শরীরের যেকোনো জায়গায় সাদা দাগ দেখা দিলে দ্রুত চিকিত্‍সকের সাথে যোগাযোগ করুন।
– ডায়াবেটিস, হাইপার থাইরয়েড – এসব যাদের আছে তাদের শ্বেতী হবার প্রবণতা বেশি থাকে।

শ্বেতী সম্পর্কে ১০টা জরুরি কথা

শ্বেতী মানেই সাদা দাগ, কিন্তু সাদা দাগ মানেই শ্বেতী নয়।
শ্বেতী আদৌ ছোঁয়াচে নয়।
শ্বেতীর সঙ্গে কুষ্ঠরোগের কোনো সম্পর্কই নেই।
শ্বেতী সঙ্গে লিভারের অসুখের বা পেটের রোগের কোনো সম্পর্ক নেই।
শ্বেতী হবার সঙ্গে খাদ্যাভ্যাসের কোনো সম্পর্ক নেই।
শ্বেতীরোগী নির্ভয়ে টক,ঝাল, মিষ্টি খেতে পারেন।
ভিটামিন-সি খাওয়া শ্বেতীতে নিষিদ্ধ নয়। দুধ খাওয়াও বারণ নয়।
বাবা অথবা মায়ের শ্বেতী থাকলে সন্তানের যে শ্বেতী হবেই, তার কোনো মানে নেই।
শ্বেতী শুরুতেই চিকিৎসা করান।
বেশিরভাগ সময়েই ওষুধেই সারে শ্বেতী।
ত্বক শল্য চিকিৎসা শ্বেতীর চিকিৎসায় নতুন দিগন্ত খুলে দিয়েছে।

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

 

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854 (সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : [email protected]

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

167 জন পড়েছেন
শেয়ার করুন