সময় ব্যাক 31

চাঁদপুর তিন নদীর মোহনার সৌন্দর্য দেখে মুগ্ধ প্রতিমন্ত্রী পলক

চাঁদপুর প্রতিনিধি :

চাঁদপুরের পদ্মা-মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর মোহনা ও প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখে মুগ্ধ হয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক।

শুক্রবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে পরিবার নিয়ে তিন নদীর মোহনায় ঘুরতে যান তিনি।

দুই দিনের সরকারি সফরে তিনি ঢাকার সদরঘাট থেকে লঞ্চে বিকেলে সপরিবারে চাঁদপুর মাদরাসা রোড বিকল্প লঞ্চঘাটে এসে পৌঁছান। সেখানে প্রতিমন্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের স্বাগত জানান চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) অঞ্জনা খান মজলিশ ও পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মিলন মাহমুদ।

লঞ্চঘাট থেকে প্রতিমন্ত্রী সপরিবারে অন্যান্য সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে চাঁদপুরের প্রাকৃতিক অপরূপ সৌন্দর্য মণ্ডিত এলাকা বড় স্টেশন মোলহেড পরিদর্শন করেন। সেখানে সূর্যাস্তের মনোমুগ্ধকর দৃশ্য দেখে তিনি বিমোহিত হন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, তিন নদীর মোহনার এমন অপরূপ দৃশ্য বাস্তবে না দেখলে বিশ্বাস হবে না। আমার কাছে নদী উপকূলীয় শহরটি খুবই ভালো লেগেছে।

এরপর প্রতিমন্ত্রী স্পিডবোটে করে শহরের মোলহেড প্রধান তিন নদীর মোহনা, পুরান বাজার হরিসভা মেঘনা পাড়, শহরের আশপাশ ভ্রমণ শেষে ডাকাতিয়া নদী হয়ে পুরাণ বাজার ডিগ্রি কলেজ পরিদর্শন করেন। কলেজে সদ্য স্থাপিত ৭ মার্চ চত্বর, শহীদদের স্মরণে নির্মিত অনির্বাণ উত্তরাধিকার এবং কলেজের প্রাকৃতিক পরিবেশ ঘুরে দেখেন। কলেজটির মনোরম পরিবেশ দেখে তিনি অধ্যক্ষ রতন কুমার মজুমদারকে ধন্যবাদ জানান।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের এমন সুন্দর পরিবেশ আমাকে মুগ্ধ করেছে। এই পরিবেশ দেখে আমি নিজেও গর্ববোধ করছি।

প্রতিমন্ত্রী ভ্রমণকালে শহরের মোলহেড ‘রক্তধারা’, তিন নদীর মোহনায় গোধূলি বেলার দৃশ্য, পুরান বাজার কলেজের ‘৭ মার্চ চত্বর’ ‘অনির্বাণ উত্তরাধিকার’ ও কলেজের বিভিন্ন স্থানে সপরিবারে এবং প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে নিয়ে স্থির চিত্র ধারণ করেন।

শহরের প্রধান পর্যটন কেন্দ্র বড় স্টেশন মোলহেডে প্রতিমন্ত্রী উপস্থিত হলে সেখানে চাঁদপুর পৌরসভার পক্ষ থেকে তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।

ভ্রমণকালে উপস্থিত ছিলেন- প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব (উপসচিব) মো. সাইফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইমতিয়াজ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আসিফ মহিউদ্দিন, চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ, চাঁদপুর পৌরসভার কাউন্সিলর সফিকুল ইসলাম ও ফরিদা ইলিয়াছ প্রমুখ।

প্রতিমন্ত্রীর অনুষ্ঠান সূচির মাধ্যমে জানা গেছে, শনিবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় জেলার মতলব দক্ষিণ উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তি প্রস্থর স্থাপন উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন। এরপর একই স্থানে আইসিটি বিভাগের বাস্তবায়িত লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতি ব্যাচের সর্বোচ্চ দুইজন ফ্রিল্যান্সারের মাঝে ল্যাপটপ বিতরণ করবেন।

এদিন দুপুর সাড়ে ১২টায় মতলব দক্ষিণ উত্তর উদমদী গ্রামে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং ও ইনকিউবেশন সেন্টারের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন শেষে ঢাকার উদ্দেশে চাঁদপুর ত্যাগ করবেন পলক।

 219 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন