রিপোর্ট 436

ট্রেনের ভয়ে প্রেমিক-প্রেমিকার নদীতে ঝাঁপ, দু’জনই গুরুতর আহত

জেলা প্রতিনিধি রাজবাড়ী : প্রকাশিত: ০২:৫৫ পিএম, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২

রেলব্রিজে বসে কথা বলছিলেন প্রেমিক প্রেমিকা। এমন সময় আসতে থাকে একটি ট্রেন। জীবন বাঁচাতে ব্রিজ থেকে ঝাঁপ দেন প্রেমিক যুগল। এতে দুজনই গুরুতর আহত হন।

রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার কালিকাপুর রেলব্রিজে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে তারা দুজনই ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রেমিক শামীম (২২) পাংশা উপজেলার পাট্টা ইউনিয়নের গোলাবাড়ি বনগ্রামের শাহজাহান খানের ছেলে। তিনি নরসিংদী জেলা কারাগারে কারারক্ষী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। আর প্রেমিকার (১৮) বাড়ি কালুখালী উপজেলায়।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বিকেলে ওই প্রেমিক যুগল রেলব্রিজের ওপর বসে কথা বলছিলেন। এমন সময় রাজবাড়ীর দিক থেকে কুষ্টিয়াগামী একটি ট্রেন আসতে থাকে। আতঙ্কিত হয়ে জীবন বাঁচাতে দুজনই নিচে ঝাঁপ দেন। এতে প্রেমিক শামীমের একটি হাত এবং প্রেমিকার কোমরের হাড় ভেঙে যায়।

স্থানীয়রা তাদের গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল নিয়ে যায়। সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দুজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। মেয়েটির অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক আকাশ বলেন, আহত ওই প্রেমিক-প্রেমিকাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

পাংশা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) উত্তম কুমার ঘোষ ঘটনার সত‌্যতা নিশ্চিত করেছেন।

 45 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন