সময় ব্যাক 55

তিতাসে যুবদল নেতাকে কুপিয়ে আহত

জাহাঙ্গীর আলম ইমরুল :

কুমিল্লা জেলার তিতাস উপজেলার ৫নং কলাকান্দি ইউনিয়নের দড়িমাছিমপুর গ্রামের মোঃ মনির হোসেন সরকারের ছেলে যুবদল নেতা উজ্জ্বল সরকারকে কুপিয়ে আহত করেছে একদল দুর্বৃত্ত। বর্তমানে সে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি আছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, দড়িমাছিমপুর গ্রামের যুবদল নেতা উজ্জ্বল সরকারের ছেলে ও তার ভাইয়ের সাথে কথা কাটাকাটি ও ঝামেলা হয় কালাচান্দকান্দি গ্রামের রহিম মিয়ার ছেলে শেখ রাসেল ও রুহুল আমিনের ছেলে আকরামের সাথে।

ঐদিনই রাতে (গতকাল রাত ১১.৩০ টার দিকে) চেয়ারম্যান মোঃ ইব্রাহিম সরকারের বাড়িতে রাতের খাবার খেতে যায় উজ্জ্বল। হঠাৎ ফোন আসলে ঘর থেকে বের হয়ে পাশের ক্ষেতে চলে যায় কথা বলতে বলতে। কথা বলার এক পর্যায়ে এসে লোহার পাইপ ও রাম দা দিয়ে ৫-৬ জনের একটি দল শেখ রাসেল ও আকরামের নেতৃত্বে পিছন থেকে আক্রমণ করে। এতে সে আহত হয়ে চিৎকার শুরু করলে ইব্রাহিম সরকারসহ ৭-৮ জনের একটি দল গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। আহত অবস্থায় তাকে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

এই বিষয়ে কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ইব্রাহিম সরকার বলেন, রাতে উজ্জ্বল আমার বাসায় আসে এবং এক সাথে খাবার খেতে বসে। কিছুক্ষণ পর তার মোবাইলে কল আসলে সে বাইরে চলে যায় এবং অল্পক্ষণ পরেই উজ্জ্বলের চিৎকার শুনতে পেয়ে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাই। আমি শুধু বলব, যে বা যারাই উজ্জ্বলকে আহত করেছে এর যেন সুষ্ঠু বিচার হয়। আমি তদন্তপূর্বক দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

এই বিষয়ে তিতাস থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুধীন চন্দ্র দাস বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনাটি শুনেছি। এখনও পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 79 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন