রিপোর্ট 391

ফরিদগঞ্জে শিশু ধ র্ষ ণে র চেষ্টার অভিযোগ, ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা

ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের পল্লীতে মাদ্রাসা শিক্ষক কর্তৃক দ্বিতীয় শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে স্থানীয় এক শ্রেণীর প্রভাবশালী চক্র। মাদ্রাসার সভাপতি সুবেদার (অঃ) নুরুল হক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ৩নং সুবিদপুর পূর্ব ইউনিয়নের দিগধাইর গ্রামে তালিমুল কুরআন খন্ডলের হুজুর নুরানী ও হাফিজিয়া মাদ্রাসায় ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয়রা জানান, মাদ্রাসার মুহতামিম অধ্যক্ষ হাফেজ ফয়সাল আহমেদ স্থানীয় দ্বিতীয় শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির চেষ্টা করে ঐদিন এই শিশুটি তার মায়ের কাছে গিয়ে ঘটনার বর্ননা দিলে শিশুটির অভিবাবকরা এলাকার গণ্যমান্য রাজনৈতিক এবং নব নির্বাচিত ইউপি সদস্য আলমগীর মজুমদারের নেতৃত্বে ফয়সাল আহমেদকে নাকে খতদিয়ে এলাকা থেকে তাড়িয়ে দেয়।

অভিযোগ উঠেছে যে আলমগীর মজুমদার কবির মজুমদার, রিয়াদ হোসেন,সহ মাও ফয়সাল আহমেদের মটর সাইকেল ও নগদ টাকার বিনিময়ে এই ঘটনা সমাধান করা হয়েছে।

অত্র প্রতিষ্ঠানের সভাপতি সুবেদার নুরুল হক বলেন,এরকম একটা ঘটনা ঘটেছে আমরা সকলে মিলে এখানেই বসে মাওলানা ফয়সাল আহমেদকে দশ হাত নাকে খত দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। মাদ্রাসা সাধারণ সম্পাদক ফয়েজ আহমেদ মসজিদে বসেই ঘটনার অসত্য বলেকেটে পড়ার চেষ্টা করে।

পরে তিনি বলেন স্থানীয়রা মিলে এ ঘটনা সমাধান করা হয়েছে।

এবিষয়ে মসজিদের সভাপতি মমতাজউদ্দীন লাতুর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করলে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ হোসেন বলেন, এই ঘটনাটি থানা পুলিশকে কেউ অবহিত করেনি।

অবহিত করলে অথবা অভিযোগ দিলে তা প্রয়োজনিয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 35 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন