রিপোর্ট 530

একই দিন একসঙ্গে তিন বোনকে বিয়ে!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রকাশিত: ১২:১৯ পিএম, ০৫ মার্চ ২০২২
সবসময় শোনা যায়, ভালোবাসার মানুষকে কেউ কখনো ভাগাভাগি করতে চায় না। কিন্তু কঙ্গোর এক পরিবারের তিন বোন সেই কথাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বিয়ে করেছেন এক পাত্রকেই, তাও আবার ভালোবাসার টানে।

নাইজেরীয় সংবাদমাধ্যম প্রিমিয়াম টাইমসের বরাতে শনিবার (৫ মার্চ) জিও নিউজ জানিয়েছে, একসঙ্গে তিন বোনকে বিয়ে করা ওই যুবকের নাম লুইজো। এমন ঘটনা ঘটিয়ে রীতিমতো ‘টক অব দ্য টাউন’-এ পরিণত হয়েছেন তিনি।

খবরে বলা হয়েছে, ৩২ বছর বয়সী ওই যুবকের বাড়ি মধ্য আফ্রিকার দেশ কঙ্গোর দক্ষিণ কিভু প্রদেশের কারেন এলাকায়। গত সপ্তাহে তিনি নাতালি, নাদেগে ও নাতাশা নামে তিন যমজ বোনকে বিয়ে করেছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে লুইজো জানান, তার সঙ্গে প্রথমে নাতালির পরিচয় হয়েছিল সামাজিক যোগাযোগামাধ্যমে। কথা বলতে বলতে একপর্যায়ে মেয়েটিকে ভালোবেসে ফেলেন তিনি।

লুইজো বলেন, আমি নাতালির প্রেমে পড়ে যাই। সে দারুণ, আমি তার সৌন্দর্যকে উপেক্ষা করতে পারিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলাপের কিছু দিন পরে আমরা দেখা করার সিদ্ধান্ত নেই। এটি অতটা সহজ ছিল না। কারণ আমি কাজের জন্য গিয়েছিলাম।

অবশেষে লুইজো যখন তার অনলাইন প্রেমিকার সঙ্গে সামনাসামনি দেখা করতে যান, তিনি ভাবতেও পারেননি কী চমক অপেক্ষা করছে। সামনে গেলে নাতালি তার দুই বোন নাদেগে ও নাতাশার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন, যারা দেখতে অনেকটাই একই রকম।

Hakim Mizanur Rahman New ad

যমজ তিন বোনকে দেখে কিছুটা ধন্দে পড়ে যান লুইজো। কে যে তার আসল প্রেমিকা তা বারবার গুলিয়ে ফেলছিলেন। এই সমস্যা চলতে থাকে পরেও।

এক ছেলেকেই কেন বিয়ে করলেন জানতে চাইলে তিন বোন বলেন, লুইজো যখন আসতো, আমরা একেকবার একেকজন তার কাছে যেতাম। কিন্তু সে আমাদের আলাদা করতে পারতো না। এভাবে আমরা সবাই তার প্রেমে পড়ে যাই। প্রথমে এটি ধাঁধার মতো ছিল, কিন্তু পরে কোনো কিছুই আর থামাতে পারেনি। কারণ লুইজোও আমাদের প্রেমে পড়ে গিয়েছিল।

 249 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন