রিপোর্ট 521

পুলিশ সদস্যদের টেকটিক্যাল বেল্ট-বডি ওর্ন ক্যামেরা প্রদান

কুমিল্লা জেলা পুলিশ আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে

জাহাঙ্গীর আলম ইমরুলম, কুমিল্লা ব্যুরো: ০৩ মার্চ ২০২২
কুমিল্লা জেলা পুলিশের বিভিন্ন স্তরে কর্মরত পুলিশ সদস্যদের জন্য বডি ওর্ন ক্যামেরা ও টেকটিক্যাল বেল্ট প্রদান কর্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে।

বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টায় কুমিল্লা টাউনহল মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম বার। এর মধ্য দিয়ে প্রযুক্তিগত কার্যক্রমে কুমিল্লা জেলা পুলিশ আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে এবং এর ফলস্বরূপ পুলিশের কাজে জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা আসবে বলে জানান পুলিশ সুপার।

এ সময় পুলিশ সুপার জানান, বাংলাদেশের পুলিশ বাহিনীকে উন্নত-সমৃদ্ধ হিসেবে গড়ে তুলতে উন্নত দেশের পুলিশের মতো বডি ওর্ন ক্যামেরা সংযোজনের উদ্যোগ নিয়েছেন আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ।

এর মধ্য দিয়ে প্রযুক্তিগত কার্যক্রমে কুমিল্লা জেলা পুলিশ আরো এক ধাপ এগিয়ে যাবে এবং এর ফলস্বরূপ পুলিশের কাজে জবাবদিহিতা ও স্বচ্ছতা আসবে। এই বডি ওর্ন ক্যামেরাতে দুর্ঘটনা, আইনশৃঙ্খলাসহ আশপাশের সব দৃশ্য ধারণ করা থাকে। বডি ওর্ন ক্যামেরাগুলো প্রত্যেকটি ভ্রাম্যমাণ সিসি ক্যামেরার কাজ করবে। এই ক্যামেরায় গেøাবাল পজিশনিং সিস্টেম বা জিপিএস যুক্ত থাকায় ওই পুলিশ সদস্যের অবস্থান পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে সহজেই সনাক্ত করা যাবে। জিপিএস প্রযুক্তির মাধ্যমে যেকোনো স্থানে বসেই সবকিছু তদারকি করা যাবে। এতে ধারণকৃত যাবতীয় তথ্য চলে যাবে কেন্দ্রিয় সার্ভারে। ফলে, বডি ওর্ন ক্যামোর মাধ্যমে মাঠপর্যায়ের দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের কার্যক্রম নজরদারি করা সহজ হবে। পুলিশের পাশাপাশি এর সুফল পাবে সাধারণ জনগণও। এসব ক্যামেরার মাধ্যমে অডিও, ভিডিও এবং স্থিরচিত্র ধারণ করা হবে। এছাড়া যেকোনো অপরাধমূলক ঘটনার স্থানের পারিপার্শ্বিক চিত্র ক্যামেরায় ধারণ হলে পরবর্তী সময়ে আইনি ব্যবস্থা নিতেও সুবিধা হবে।

Hakim Mizanur Rahman New ad
পুলিশ সুপার বলেন, “বিশেষ এ ক্যামেরা ছাড়াও টেকটিক্যাল বেল্ট দেওয়া হয়েছে। সর্বাধুনিক অপারেশনাল গিয়ার টেকটিক্যাল বেল্ট সংযোজন করা হচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশে। ছয় চেম্বারের আধুনিক এই টেকটিক্যাল বেল্টে থাকবে পিস্তল, হাতকড়া, অতিরিক্ত ম্যাগাজিন, এক্সপেন্ডিবল বাটন, পানির পট, টর্চ লাইট ও ওয়ারলেস। এতে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যদের হাত থাকবে স¤পূর্ণ খালি। এতে পুলিশের কাজে গতি আসবে, মনোবলও বাড়বে। একই সঙ্গে পুলিশকে দেখতেও আরো আধুনিক ও যুগোপযোগী লাগবে। এছাড়া বিপদগ্রস্থ মানুষের যে কোনো প্রয়োজনে দ্রæত সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে পারবে পুলিশ।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রশাসন ও অর্থ কাজী আবদুর রহিম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কুমিল্লা সদর সার্কেল সোহান সরকারসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

 109 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন