hoyrani

ফরিদগঞ্জে নিরীহ পরিবারের জায়গা দিয়ে রাস্তা ষড়যন্ত্র- থানায় অভিযোগ

সাহেদ হোসেন দিপুঃ

হাইমচর উপজেলার সিমান্ত বর্তি এলাকা ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১০নং দক্ষিণ গোবিন্দপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের নিরীহ প্রবাসি মোস্তফা পাটোয়ারীর জায়গায় দখলের ষড়যন্ত্র করছেন স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি মৃত আঃ রব ভূইয়ার ছেলে শাহাজান ভূইয়া পরিবার।

এবিষয়ে কয়েকবার সালিশি বৈঠক করিয়া সমাধান করে দেওয়ার পরেও বিবাদীরা কোনো পাত্তা না দিয়ে জোর পূর্বক অসহায় পরিবারের জমি দখলের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। এবিষয় সুস্থ সমাধান চেয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে ও সরজমিন গিয়ে দেখাযায়, ১১৯ নং পশ্চিম লাড়ুয়া ১৪১১ ক্ষতিয়ান ভুক্ত ৬৯৩, ৭০৩ নং দাগের আন্দরে ২০ শতক জমি ক্রয় সূত্রে মোস্তফা পাটোয়ারী মালিক হয়ে ভোগ দখলে নিয়জিত আছে। একই গ্রামের শাহাজান ভূইয়া (৬২) তার ছেলে মঞ্জু ভূইয়া (৩৫), হানিফ পাটোয়ারীর ছেলে মহিন পাটোয়ারী (২৫) গন সম্পত্তিতে মালিকানা না থাকা সত্বেও মোস্তফা পাটোয়ারী ভোগকৃত জমি দখল করার চেষ্টা করে আসছে। বিবাদীগনের জমিন থাকা না সত্বেও তারা ব্যক্তিগত ভাবে রাস্তা তৈরি করে জোর পূর্বক জমি দখল করার ষড়যন্ত্র করেছে।

বাদীগন প্রতিবাদ করলে বিবাদীরা তাদের কে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে প্যানে মারার জন্য দা, ছেনী, সাবল নিয়ে দৌড়ে আসে তাদের উপর আক্রমন করে ২ জনকে গুরুতর আহত করে। বিবাদীগন মোস্তপা পাটওয়ীর পরিবারের লোকজনকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি হুমকি প্রদান করেন।

এ ব্যাপারে মোস্তফা পাটোয়ারী বলেন, এ ব্যাপারে মোস্তফা পাটওয়ারী বলেন আমি দীর্ঘ প্রায় দুই যুগ ধরে প্রবাসে ছিলাম, আমার ক্রয়কৃত ও পৃত্রি সম্পত্তি থাকা সত্ত্বেও আমার স্ত্রী সন্তান নিয়ে এখানে বসবাস করতে পারছিলনা।

Hakim Mizanur Rahman New ad
শুধু শাহজাহান ভুইয়া এবং তার ছেলে মঞ্জু ভুইয়ার অত্যাচারের কারনে পচিশ ত্রিশ বছর পুর্বের মুল রাস্তা থেকে শাখা রাস্তাটি মৃত চেয়ারম্যান অজিউল্লাহ ভুইয়া সরকারি অর্থায়নে রাস্তাটি করে দিয়েছিলেন, তারা সেই শাখা রাস্তাটির মাটি বিক্রি করে ঝিলের সাথে মিশিয়ে দিয়েছেন। এখন অন্যায় ভাবে তারা আমার বাড়ির মাঝখান দিয়ে জোর পুর্বক রাস্তাটি তৈরি করতে চায় এবং জোর করে তারা আমার পুকুরটিও ভোগ দখল করে খায়।

এ ব্যাপারে আমি ফরিদগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলে থানার গোল ঘরে বসে কাগজপত্র দেখে উপস্থিত শাল্লিসগন আমাকে সিদ্ধান্ত দেন যে আমার জমিতে আমি নিজ দায়িত্বে বেড়া দিয়ে আমার আয়ত্তে রাখার জন্য, সে মোতাবেক আমি বেড়া দেই। আমি বেড়া দিলে শাহজাহান ভুইয়া গং আমার প্রতি চরম ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে এবং আমার জামাতাকে মারধোর করে, এখন আমি এবং আমর পরিবার নিরাপত্তা হিনতায় ভুগছি, আমি বর্তমানে তাদের ভয়ে জমির কাছে যেতে পারছিনা।

তাই প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি সরেজমিনে তদন্ত সাপেক্ষে এ অত্যাচারিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্হা গ্রহনের জন্য সহযোগিতা কামনা করছি।

এ ব্যাপারে শাহজাহান ভুইয়ার ছেলে মঞ্জু ভুইয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন পুরনো রাস্তার কথা বলে কোন লাভ নেই। থানা থেকে চেয়ারম্যানের উপর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, চেয়ারম্যান যেদিক দিয়ে বলে সেদিক দিয়ে রাস্তা হবে।

 172 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন