sopnodosh meho

স্বপ্নদোষ শুক্রমেহ দ্রুতস্খলন শুক্রতারল্যর ঔষধ ও চিকিৎসা

হাকীম মিজানুর রহমান :
বেশিরভাগ বিবাহিত-অবিবাহিত মানুষই স্বপ্নদোষ, শুক্রমেহ, দ্রুতস্খলন, শুক্রতারল্য সমস্যায় ভোগেন। পরিমিত জ্ঞানের অভাবে এসব রোগ থেকে মুক্তি পাচ্ছেন না। অনেকেই মাস্টারবেশন বা হস্তমৈথুন করে যৌবনের সময়টা কাটিয়ে দেন। এসব করে যৌবন শেষ করে ফেলেন। ফলে হতাশায় জর্জরিত হয়ে মুক্তির পথ খুঁজে পান না। এবার জেনে নিন কী কারণে এসব সমস্যা বা রোগে পতিত হন এবং এ থেকে মুক্তি পাবার সহজ পথ পাবেন কীভাবে-

স্বপ্নদোষ কী?

ঘুমের মধ্যে যৌন উত্তেজনা বোধ করা বা যৌনাঙ্গ থেকে বীর্য বের হওয়াকে স্বপ্নদোষ বলে। সাধারণত ঘুমের মধ্যে যৌন উদ্দীপক কোন স্বপ্ন দেখলে এ সমস্যা হয়ে থাকে। সকালে উঠে এই স্বপ্ন আপনার স্মৃতিতি নাও থাকতে পারে।

হস্তমৈথুন করার সাথে স্বপ্নদোষের সম্পর্ক নেই। লিঙ্গে স্পর্শ না করলেও এটি হতে পারে।

কারণ

বয়ঃসন্ধিকাল শুরু হলে শরীরে হরমোন নিঃসরণের পরিমাণ বেড়ে যায়। এসময় পুরুষদের শরীরে টেস্টোস্টেরন হরমোন নিঃসৃত হওয়া শুরু করে, যা পুরুষের শরীরে বীর্য সৃষ্টিতে সাহায্য করে। এই বীর্য শরীরে জমা হতে থাকে। এটি মাঝে মাঝে স্বপ্নদোষের মাধ্যমে বের হয়ে যায়।

মাঝে মাঝেই স্বপ্নদোষ হওয়া কি কোন সমস্যা?

বেড়ে ওঠার সময় এরকম হতেই পারে। এতে ভয় পাওয়ার কিছু নেই এবং এটি নিয়ন্ত্রণ করারও কোন উপায় নেই।

অনেক বেশি স্বপ্নদোষ হলেও চিন্তার কোন কারণ নেই। কারো কারো সপ্তাহে কয়েকবার, আবার কারো কারো সারা জীবনে মাত্র ২-৩ বার এরকম হয়। নাইট কিং সেবন করলে এ সমস্যা কমে আসে।

সবার হয় কি?

বয়ঃসন্ধিকাল থেকে শরীরে বীর্য বা স্পার্ম সৃষ্টি হওয়ার পর এরকম হয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম দেখা যেতে পারে। পুরুষ ও মহিলা উভয়েরই এসমস্যা হতে পারে।

http://picasion.com/

স্বপ্নদোষ হলে কী করবেন?

ঘুম থেকে উঠে প্রথমে ভাল করে নিজেকে পরিষ্কার করবেন। স্বপ্নদোষের ব্যাপারে অস্বস্তিবোধ করলে ‘নাইট কিং’ সেবন করতে পারেন।

নাইট কিং  এন্ডোমাইন গ্ল্যান্ডের ক্রিয়াশক্তি বৃদ্ধি এবং হরমোনাল নিঃসরণ স্বাভাবিক করে। দুর্বল ও অক্ষম নার্ভসমূহকে সবল, সতেজ ও কর্মক্ষম করে। যৌনশক্তি নিয়ন্ত্রণ করতে অতীব কার্যকরী ও নিরাপদ। এতে কোনো প্রকার রাসায়নিক পদার্থ নেই বলে কোনো পাশর্^প্রতিক্রিয়াও নেই।
নাইট কিং  নিয়মিত সেবনে যৌনশক্তি স্থায়ীভাবে নিয়ন্ত্রণ ও অতি আনন্দদায়ক করে। মহিলা ও পুরুষের হরমোনাল ব্যালেন্স ফিরিয়ে আনে এবং শুক্রানু বৃদ্ধি করে। ফলে অধিকাংশ ক্ষেত্রে বন্ধ্যাত্ব দূরীভূত হয়।

সেবন বিধি : ১ চা চামচ চূর্ণ দিনে ২বার মধু / উষ্ণ পানি / পাতলা দুধের সহিত সেব্য।

শুক্রমেহ কী?
স্বপ্নাবেশ বা কম উদ্দীপনা ছাড়াই বারবার বীর্যস্থলন হল শুক্রমেহ । এ ধরনের সমস্যায় স্বপ্নদোষ বা কম উদ্দীপনা ছাড়াই বারবার বীর্যস্থলন হয়। সাধারণভাবে বলতে গেলে ইহা নিজে কোন রোগ নয় বরং অন্যান্য রোগের উপসর্গে আবার অনেক সময় সিফিলিস, গনোরিয়া, ধ্বজভঙ্গ রোগের লক্ষণ স্বরূপ এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।
অকাল বীর্যপাত বা দ্রুতস্খলন কী?
অকাল বীর্যপাত বা দ্রুতস্খলন হলো যৌনসঙ্গমকালে পুরুষের দ্রুত বীর্যপাত যাকে ইংরেজিতে বলা হয় প্রিম্যাচিওর ইজ্যাকিউলেইশন। এটি একটি সাধারণ যৌনগত সমস্যা। কিছু বিশেষজ্ঞের মতে প্রতি তিনজন পুরুষের মধ্যে একজনকে এ সমস্যায় আক্রান্ত হতে দেখা যায়। স্ত্রী যোনীতে পুরুষাঙ্গ প্রবেশের পর অঙ্গ চালনার পরিণতি হিসেবে বীর্যপাত হয়ে থাকে। যোনীতে লিঙ্গ প্রবেশের সময় থেকে বীর্যপাত অবধি সময়কে বলা হয় বীর্যধারণ কাল। কতক্ষণ অঙ্গচালনার পর বীর্যপাত হবে তার কোন সুনির্দ্দিষ্ট বা আদর্শস্থানীয় সময় নেই। পুরুষে পুরুষে, বয়সের তারতম্যে বা পরিবেশভেদে বীর্যধারণ ক্ষমতা বিভিন্ন হতে দেখা যায়। তবে নিয়মিত যদি যোনীতে লিঙ্গ প্রবেশের পূর্বে বা অব্যবহিত পরেই অপ্রতিরোধ্যভাবে বীর্যপাত হয়ে যায় তবে তা দ্রুতস্খলন সমস্যা হিসেবে বিবেচিত হবে। এটি একটি যৌনসমস্যা কেননা এর ফলে পুরুষ প্রযোজনীয় সময় ধরে অঙ্গচালনার সুখ থেকে বঞ্চিত হয়। অপর দিকে অকাল বীর্যপাতের দরূণ পুরুষাঙ্গ নেতিয়ে পড়ে বলে অঙ্গ চালনা আর সম্ভব হয় না যার ফলে স্ত্রীর চরমানন্দ লাভের আগেই সঙ্গমের সমাপ্তি হয়।
শুক্রতারল্য কী?

এটি নানা রকম রোগের লক্ষন প্রকাশ পায়। বিশেষ করে সিফিলিস, গনোরিয়া, অপুষ্টি, ধ্বজভঙ্গ হরমোনের ঘাটতির জন্য এমন হয়ে থাকে। তবে অতিরক্ত মাত্রায় শুক্র ক্ষয়ে ও এটি দেখা যায়।আবার বেশি মাত্রায় যৌন সঙ্গমে শুক্র থলিত শুক্র থলিতে কম শুক্র কম সঞ্চিত হয় এবং গুঢ়ত্ব কমে আসে ফলে পাতলা দেখা যায়।

লক্ষণ:
বীর্যের গাঢ়ত্ব থাকেনা এবং বীর্য পাতলা হয় ।
সংক্রামক যৌন রোগে ভূগলে এমন হয়।
যৌন হরমোন বা পিটুইটারী অ্যাড্রোনাল প্রভৃতি গ্রন্থি ঠিকমত কাজ না করলে।
দেহে অপুষ্টি এবং ভিটামিনের অভাব থাকে।
বেশী বীর্য ক্ষয় হবার জন্য মাথাঘুরা বুক ধরফড় প্রভৃতি হয়ে থাকে।
রোগী চিন্তিত থাকে এবং অপরাধাী মনে করে।
বিবাহের পূর্বে এ অবস্তা হলে বিবাহের জন্য ভয় পায়।
অবশ্যই ভাল চিকিৎসকের পরামর্শ মত ঔষধ সেবন করবেন চিকিৎসাঃ
১. প্রচুর পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ করা উচিত।
২. যৌন রোগ সিপিলিস গনোরিয়া থাকলে তার চিকিৎসা করতে হবে।
৩. অতিরিক্ত শুক্র ক্ষয় হলে শুক্রপাত কম করতে হবে।
৪ হরমোনের কারনে হলে মিথাইল টেস্টস্টেরণ (methyl teststoerone) জাতীয় ঔষধ।

উপরে বর্ণিত রোগের জন্য সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে চাহিদামতো ঔষধ পৌছানো হয়।  ঔষধ পাওয়া যাবে অর্ডার করলে। 

রোগীর অবস্থা শুনে ও দেখে সারাদেশের যে কোনো জেলায় বিশ্বস্ততার সাথে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

Hakim Mizanur Rahman New ad

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে বিশ্বস্ততার সাথে ঔষধ ডেলিভারী দেওয়া হয়।

ঔষধ পেতে যোগাযোগ করুন :

হাকীম মিজানুর রহমান (ডিইউএমএস)

হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
ইবনে সিনা হেলথ কেয়ার
একটি বিশ্বস্ত অনলাইন স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠান।

মুঠোফোন : (চিকিৎসক) 01742-057854

(সকাল দশটা থেকে বিকেল ৫টা)

ইমো/হোয়াটস অ্যাপ : (চিকিৎসক) 01762-240650

ই-মেইল : ibnsinahealthcare@gmail.com

সারাদেশে কুরিয়ার সার্ভিসে ঔষধ পাঠানো হয়।

শ্বেতীরোগ একজিমাযৌনরোগ, পাইলস (ফিস্টুলা) ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসক।

আরো পড়ুন : শ্বেতী রোগের কারণ, লক্ষ্মণ ও চিকিৎসা

আরো পড়ুন : মেহ-প্রমেহ ও প্রস্রাবে ক্ষয় রোগের প্রতিকার

আরো পড়ুন : অর্শ গেজ পাইলস বা ফিস্টুলা রোগের চিকিৎসা

আরো পড়ুন : ডায়াবেটিস প্রতিকারে শক্তিশালী ভেষজ ঔষধ

আরো পড়ুন : যৌন রোগের শতভাগ কার্যকরী ঔষধ

আরো পড়ুন :  নারী-পুরুষের যৌন দুর্বলতা এবং চিকিৎসা

আরো পড়ুন : দীর্ঘস্থায়ী সহবাস করার উপায়

আরও পড়ুন: বীর্যমনি ফল বা মিরছিদানার উপকারিতা

 719 সর্বমোট পড়েছেন,  4 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন