রিপোর্ট ব্যাক 31

মতলবের ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগের জাতীয় শোক দিবস পালন

সফিকুল ইসলাম রানা :

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার ছেংগারচরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

১৮ আগস্ট বৃহস্পতিতবার দুপরে ছেংগারচর সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা ও মিলাদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ড. শামসুল আলম।

ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি হাসান কাইয়ুম চৌধুরীর’র সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক(ভারপ্রাপ্ত) রতন ফরাজীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর-২ নির্বাচনী আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার জনগণের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের কল্যাণে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন জানিয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে তারা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন।

ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগ আয়োজিত ছেংগারচর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে জাতীয় শোকদিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনাসভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও মতলব উত্তর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মনজুর আহমেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান।

piles cure add

আরো বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি সিরাজুল ইসলাম লস্কর, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান শহীদ উল্যাহ প্রধান, সাবেক মন্ত্রী পুত্র বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আসিসুল হক, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ উপকমিটির সদস্য যথাক্রমে লায়ন আলহাজ্ব আরিফ উল্যাহ সরকার ও কাজী মিজানুর রহমান মিজান, উপজেলা আওয়ামীলীগের অর্থ বিষয়ক মিজানুর রহমান, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি দেওয়ান মোঃ জহির, ছেংগারচর পৌর আওয়ামীলীগের সদস্য আতিকুর রহমান, গুলশান থানা যুলীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান সেলিম,চাঁদপুর জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ-সভাপতি রহমত উল্যাহ চৌধুরী, উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ইয়ার হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক এড. মহসীন মিয়া মানিক, উপজেলা কৃষকলীগের সাধারন সম্পাদক জিএম ফারুক, উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগের সাধরন সম্পাদক এড.আক্তারুজ্জামান, পৌর যুবলীগ নেতা ইমতিয়াজ হোসেন, পৌর যুবলীগের যুগ্ম-সম্পাদক শাজাহান মোল্লা, পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জামান সরকার,উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা আবু হানিফ অপু, ছেংগারচর পৌর ছাত্রলীগ নেতা আবু হানিফ অপু প্রমূখ।

তিনি আরো বলেন, শুধু জিয়াউর রহমান নয়, খন্দকার মোশতাক সময় মত তার কাজ করার জন্য অনেক আগেই আমাদের দলে প্রবেশ করেছিল। ১৫ আগস্টের ধারাবাহিকতা ছিল ৯৬ সাল পর্যন্ত। এ হত্যার বিচার বাতিলের জন্য ইনডেমনিটি অ্যাক্ট জারি করা হয়। পরবর্তীতে জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এলে যুদ্ধ অপরাধীর বিচারের মাধ্যমে জাতিকে কলঙ্ক মুক্ত করেন।

 138 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন