chandpurreport 1021

চাঁদপুরে বন্ধুকে হত্যাকাণ্ডের ঘটনার নতুন মোড়

নিউজ ডেস্ক :

চাঁদপুর সদরে দশম শ্রেণির এক ছাত্র ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে তার বন্ধু। সোমবার (২৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের নানুপুর আমিন বেপারি বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মেহেদীকে (১৬) চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বরকতকে (২০) এলাকাবাসী আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

নিহত মেহেদীর বাবা কাঁচামাল ব্যবসায়ী হেলাল বেপারী বলেন, মেহেদী-বরকত পরস্পর বন্ধু। কয়েক দিন আগে আমার ছেলে বরকতের বেল্ট নেয় এবং এর পরিবর্তে তাকে দুটি বেল্ট দিতে চায়। কিন্তু বরকত তা মেনে নেয়নি। সে তার আগের বেল্ট ফেরত চায়। বেল্ট না দেওয়ায় বরকত আমার ছেলেকে সোমবার বিকেলে নদীর পাড়ে নিয়ে বেদম মারধর করে। সন্ধ্যার দিকে আমার ছেলে বাড়ির কাছের দোকানে নাস্তা করার সময় বরকত তাকে ডেকে নিয়ে যায় ছুরিকাঘাত করে। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রশিদ বলেন, রোবরাত রাতে মেহেদী ও বরকত তাদের গ্রামে ডাব চুরি করতে যায়। এ সময় বরকত প্যান্টের বেল্ট খুলে নিচে রেখে গাছে উঠে। মেহেদী তা লুকিয়ে রাখে। গাছ থেকে নেমে বেল্ট না পেয়ে বরকত মেহেদীকে অনেকবার তা ফেরত দিতে অনুরোধ জানান। বেল্ট না দেওয়ায় সোমবার সন্ধ্যায় মেহেদীকে ছুরি দিয়ে আঘাত করে।

diabeties gloco care

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদীপ্ত রায় বলেন, ডাব চুরির ঘটনায় বাগবিতণ্ডার জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত বরকত রোবরাব রাতে ডাব চুরি করার সময় তার বেল্ট মেহেদী লুকিয়ে রাখে। সোমবার সন্ধ্যায় এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে ছুরিকাঘাত করে বরকত। বরকতকে ছুরিসহ আটক করা হয়েছে।

 188 সর্বমোট পড়েছেন,  1 আজ পড়েছেন

শেয়ার করুন